দেশের খবরবিনোদনশিরোনাম এই মুহূর্তে

আজ খুলছে সিনেমা হল , তবে কি পাশাপাশি বসে সিনেমা দেখা যাবে ? জেনে নিন –

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : করোনা আনলক-৫ পর্বে দর্শকদের মনোরঞ্জন করার জন্য আজ খুলছে সিনেমা হল । গোটা দেশের সিনেমা হল খুললেও কলকাতার প্রায়  ৮০ ভাগ সিনেমা হল বন্ধই থাকছে বলে শোনা যাচ্ছে । আবার আগামী কাল খুলছে কিছু সিনেমা হল । তবে সবকিছুই করতে হবে করোনার বিধিনিষেধ মেনে ।

পূর্ব ভারতের প্রযোজক, পরিবেশক, প্রদর্শকদের সংগঠন ইম্পা সূত্রের খবর , বৃহস্পতিবার নন্দন এবং বেলঘরিয়ার রূপমন্দির নামের একটি হল খোলার কথা । সেই সঙ্গে আইনক্সের স্বভূমি ও মধ্যমগ্রামে শো চালু হচ্ছে । হাওড়ার একটি মাল্টিপ্লেক্সও খোলার কথা । 

ইম্পা-র কোষাধ্যক্ষ শান্তনু রায়চৌধুরীর কথায় , ‘‘প্রধানত নতুন সিনেমার অভাব । তবে এই দুর্দিনে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের ছবি এবং লকডাউনের আগে মুক্তিপ্রাপ্ত কিছু বাংলা-হিন্দি ছবিতেই ভরসা করতে হচ্ছে ।’’ দুর্গাপুরে সিঙ্গল স্ক্রিন ও মাল্টিপ্লেক্সের কর্তা অরিজিৎ দত্ত বলছেন , ‘‘পুরনো ছবির ক্ষেত্রেও কোনও কোনও ডিজিটাল পরিষেবা সংস্থা বেশি টাকা চাইছে । এটা সমস্যার ।’’

যদিও ডিজিটাল প্রযুক্তি সংস্থা ইউএফও-র তরফে রাজকমল চৌরাসিয়া বলছেন , ‘‘লকডাউন-পরবর্তী পর্যায়ে সিনেমার এই সঙ্কটে নতুন মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি আপলোডের নির্ধারিত মূল্যে আমরা ৫০ শতাংশ ছাড় দেব । আর পুরনো ছবির ক্ষেত্রে শুধু নিয়ে আসার খরচটুকু দিতে হবে ।’’

তবে এর মধ্যে সংশয় দেখা দিয়েছে কলকাতার বেশ কিছু নামকরা বড় মাল্টিপ্লেক্স প্রেক্ষাগৃহগুলো খোলা নিয়ে । যেমন নবীনা হল ২১ তারিখের আগে খুলছে না বলে জানিয়ে দিয়েছে তাদের কর্তৃপক্ষ , প্রাচী, বসুশ্রীর মতো হল আগামীকাল খোলার কথা ।  প্রিয়া হল শনিবার থেকে শো চালু করার কথা । আসলে সমস্যাটা হয়েছে অন্য জায়গায় , এই করোনার জেরে লকডাউন এর মধ্যে বড় বড় ব্যানার তাদের সিনেমাগুলির ডিজিটাল ওয়েবসাইটে ছেড়ে দেওয়ায় দর্শকরা ঘরে বসে নতুন সিনেমার আনন্দ উপভোগ করছে । তাই এই পরিস্থিতিতে প্রেক্ষাগৃহ খুললেও কতটা দর্শক আসবে তা নিয়ে ধন্ধে রয়েছে হল মালিকরা ।

 একটি বিষয়ে ছোট-বড় সিঙ্গল স্ক্রিনগুলিও একমত , কাগজের টিকিট ব্যবহার হবে না । স্মার্টফোনহীন দর্শকের কাছে এসএমএসে হলে ঢোকার ছাড়পত্র পৌঁছে যাবে ।

আইনক্সের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা অমিতাভ গুহঠাকুরতা বলছেন , ‘‘পরিস্থিতি বুঝে ধাপে ধাপে বাকি মাল্টিপ্লেক্স খোলারও প্রস্তুতি চলছে ।’’

তবে সিনেমা হলে এতদিন ধরে যে সবাই পাশাপাশি বসে সিনেমা উপভোগ করত সেটা নিয়েও তৈরি হয়েছে জটিলতা । প্রায় বেশিরভাগ হল মালিকের বক্তব্য ,  ‘‘একই পরিবারের দু’জন বা যুগলকে পাশাপাশি বসতে না দিলে অনেকেই হলবিমুখ হতে পারেন ।’’ তবে তাদের আশা , ‘‘চিন , জাপানের মতো অনেক দেশেই ধাপে ধাপে সিনেমা হলে দর্শকসংখ্যা বাড়ানোর অনুমতি মিলছে । এখানে কী হবে , তা নির্ভর করছে কোভিড পরিস্থিতির উপরেই ।’’

SRC

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button