পশ্চিমবঙ্গশিরোনাম এই মুহূর্তে

এবার হাত বাড়ালেই পেয়ে যাবেন সুন্দরবনের মনোরম দৃশ্য –

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : সারি সারি জঙ্গল , গভীর ঘন বনবাদার পেরিয়ে জলরাশি । যেখানে সাঁতরে বেড়াচ্ছে কুমির আর জঙ্গলে বিচরণ করছে জঙ্গলের সৌন্দর্য , আমাদের জাতীয় পশু বাঘ , সঙ্গে রয়েছে বিষধর সাপ আরো কত কি । এই সমস্ত কিছুর মনোরম দৃশ্য পেয়ে যাবেন একেবারে হাতের নাগালে ।

কেননা আগামী বছরের শুরুতে ২২টি সেতুর মাধ্যমে জুড়ে দেওয়া হচ্ছে সেখানকার একাধিক ব্লক । এর ফলে যেমন সেখানকার স্থানীয় মানুষদের যাতায়াতের সুবিধা হবে তেমনি বাড়বে পর্যটকদের আনাগোনা এবং কর্মসংস্থানের সুযোগ । আর এইসব এর উপর বিশেষ সুবিধা হবে রাজ্য সরকারের ।

কারণ এখানকার যোগাযোগের একমাত্র পথ ছিল নদী । বহু পর্যটক এখানে ঘুরতে আসার সময় নানাবিধ সমস্যায় পড়তেন । এবার রাজ্য সরকার যোগাযোগের পথকে সেতুতে রূপান্তরিত করে দিলে একদিকে যেমন বহু পর্যটক সেখানে ঘুরতে যেতে পারবেন । অপরদিকে এই করোনাকালে আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হওয়া রাজ্য সরকারের কোষাগার আবার ফুলে ফেঁপে উঠবে ।

কাকদ্বীপ-পাথরপ্রতিমা, বাসন্তী-গোসাবা , নামখানা-কাকদ্বীপ , জয়নগর-মথুরাপুর , হাড়োয়া-বারাসত । নামখানা ব্লকে তৈরি হচ্ছে তিনটি সেতু । পাথরপ্রতিমায় দু’টি । ক্যানিং ১ এবং ২ নম্বর ব্লককে জুড়তে মৌখালি খেয়াঘাটে তৈরি হচ্ছে সেতু । উত্তর ২৪ পরগনার সুন্দরবনে সেতু গড়ে উঠছে বালি-বোয়ালিয়া , গোমতী ও বিদ্যাধরী নদীতে । দক্ষিণ ২৪ পরগনায় সেতু গড়ে উঠছে মাতলা , বিদ্যা , গুন্ডাকাটি , মণি ইত্যাদি নদীর উপর । এইসব সেতুর মাধ্যমে কাছাকাছি চলে আসবে কলকাতা ও সুন্দরবন । 

২২টি সেতুর মধ্যে ১২টি বড়, ১০টি ছোট আকারের । বড় সেতুগুলি তৈরি করছে পূর্ত দফতর এবং ছোট সেতু তৈরির দায়িত্বে আছে ‘সুন্দরবন উন্নয়ন পর্ষদ’।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button