কলকাতাপশ্চিমবঙ্গশিরোনাম এই মুহূর্তে

করোনা আবহের মধ্যে কিভাবে পুজো করার অনুমতি দিল রাজ্য সরকার , জানতে চাইল হাইকোর্ট –

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : এমনিতেই এইমুহূর্তে সারা বিশ্বজুড়ে করোনার দাপট অব্যাহত । তারই মধ্যে এখন আনলক পর্বে সমস্ত কিছু প্রায় খুলে গেল বেশ কিছু জায়গা ও স্কুল কলেজ খোলা বাকি আছে ।

কিন্তু বিশ্বজুড়ে এই মহামারীর দাপট যত দিন যাচ্ছে ততই প্রবল আকার ধারণ করছে । এরইমধ্যে রাজ্যে দুর্গোৎসব নি রাজ্য সরকার অনুমতি দিয়েছে পুজো করার এবং আর্থিক অনটনের অভাবে পিছিয়ে পড়া ক্লাবগুলোকে পুজো করার জন্য অনুদান দিচ্ছে । যার জেরে প্রশ্ন তুলে হাইকোর্টে ফের জনস্বার্থ মামলা করেছিল সিটু নেতা সৌরভ দত্ত ।

যার পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল এই মামলার শুনানি ছিল ডিভিশন বেঞ্চে এবং আজও এই মামলার শুনানি হওয়ার পর বিচারপতি সঞ্জীব ভট্টাচার্যকে কিছু প্রশ্ন তোলেন । তার প্রশ্ন ,

১. অনুদান কি শুধু দুর্গাপুজোতেই দেয় সরকার ? নাকি অন্য উৎসবেও দেওয়া হয় ? ঈদেও কি দেওয়া হয়েছিল ? দুর্গাপুজো নিয়ে আমরাও গর্বিত , কিন্তু তাই বলে কি যেভাবে ইচ্ছা টাকা দেওয়া যায় ? গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় কি এই ভেদাভেদ করা যায় ? 

২. আপনারা (সরকার) বলছেন যে এই টাকা দেওয়া হচ্ছে মাস্ক-স্যানিটাইজার কেনার জন্য । এটা তো সরকার নিজেই কেন্দ্রীয়ভাবে কিনে করতে পারত । তাতে খরচ কম হতো । 

৩. যেখানে সংক্রমণের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনও বন্ধ সেখানে পুজোর অনুমতি কী ভাবে দিলেন ? 

৪. কী কী সুরক্ষা বিধি মেনে চলছেন আপনারা ?

৫. ভিড় নিয়ন্ত্রণে নীলনকশা কী ?

৬. সব কাজ পুলিস করলে ক্লাবকে টাকা দেওয়ার কী যুক্তি ?

এই পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যের উত্তর হল , ট্রাফিক পুলিসের “সেফ ড্রাইভ- সেভ লাইফ” প্রোজেক্টেই এই টাকা দিচ্ছে সরকার । সুপ্রিম কোর্ট বলে , “রাজ্য ও কলকাতা পুলিসের মাধ্যমে টাকা দেওয়া যাবে । ”

অবশেষে মামলায় হাইকোর্ট স্থগিতাদেশ রায় দেয় এবং সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করা হয় । যদিও ওই ইস্যুতে সেই মামলার নিষ্পত্তি এখনো হয়নি ।

আইনজীবী সালোনি ভট্টাচার্য জানিয়েছেন , সুপ্রিম কোর্টের রায়ের কপি আদালতে জমা দেবেন ।

SRC

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button