কলকাতাপশ্চিমবঙ্গশিরোনাম এই মুহূর্তে

তৃণমূলের সরকার থাকলে ভবিষ্যতে দুর্গাপূজা বন্ধ হয়ে যাবে। পশ্চিমবঙ্গের অবস্থাও ঢাকা শহরের মতোই হবে, বললেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু –

সংবাদ ভাস্কর নিউস ডেস্ক : আজকে হাওড়া শহরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র দামোদর দাস মোদী এপিজি মেমোরিয়াল এসোসিয়েশনের দুর্গাপুজো ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন। এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে এমনটাই আশঙ্কা প্রকাশ করলেন ভারতীয় জনতা পার্টির সাধারণ রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন বসু। তিনি দাবি করেন অতীতের একটা সময়ে এই বাংলার চেয়েও বেশি দুর্গাপুজো হতো ওপার বাংলার ঢাকা শহরে।

কিন্তু আজকে সেই শহরেই হাতে গোনা কয়েকটি পুজো হয়। তিনি তার আশঙ্কা প্রকাশ করেন এই সরকার যদি ক্ষমতায় থেকে যায় তাহলে অদূর ভবিষ্যতে এই রাজ্যেও দুর্গাপুজো কমতে থাকবে। পাশাপাশি তিনি আরো অভিযোগ করেন এই রাজ্যে এক সময়ে মহরমের জন্য দুর্গাপুজোর ভাসান অব্দি বন্ধ করে দেওয়া হয়ে ছিল।

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে সরকার ভাসান করতে দিতে বাধ্য হয়। তিনি আরও অভিযোগ করেন এই রাজ্যে রাম নবমীর মিছিলে অস্ত্র হাতে নিলে তাকে গ্রেফতার করা হয়। অথচ মহরমের তাজিয়ায় অস্ত্র নিয়ে মিছিল করলে পুলিশ ব্যবস্থা নেয় না।
তিনি উষ্মা প্রকাশ করে বলেন এই রাজ্যে দুর্গা ঠাকুরের হাতে অস্ত্র থাকবে না, দুর্গা পুজোয় অস্ত্র পুজো ছাড়া দুর্গা পূজা হয় না বলেই দাবি জানান তিনি।


তিনি আরও বলেন দুর্গাপূজার সাথে রাজনীতির কোনো সম্পর্ক নেই। অতীতেও বিজেপির কর্মীরা অনেক দুর্গাপূজার সাথে যুক্ত ছিলেন আজকেও আছে। তিনি দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রথম প্রধানমন্ত্রী যিনি এই আন্তরিকতার সাথে বাঙালির উৎসবে নিজেকে নিবিড় ভাবে যুক্ত করলেন।

এর আগে কোনো প্রধানমন্ত্রী এটা করেননি। দুর্গাপুজো মানুষের সাথে যুক্ত হওয়ার একটি মাধ্যম তাই দুর্গাপুজো তে কলকাতা হাই কোর্টের রায়ের নির্দেশ অনুযায়ী তারা এই পুজো ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করলেন। প্রধানমন্ত্রী আজকে মহা ষষ্ঠীর দিনে মায়ের বোধন করলেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button