দুর্গাপুর

ব্যবসায়ী থেকে ক্রেতা করোও মধ্যেই নেই করোনা সচেতনতা , দুর্গাপুরের বেনাচিতি বাজারে এভাবেই চলছে পুজোর কেনাকাটা :

সংবাদ ভাস্কর নিউজ: দেশবাসী দেখেছে করোনা ভাইরাসের অতিমারীর ভায়াবহ ফল , দেশবাসী দেখেছে গত ছয়মাস যাবৎ টানা লক ডাউনের করুন চিত্র , দেশবাসী স্বাক্ষী থেকেছে সারা দেশব্যাপী অগুনিত আমজনতার এই মারণ ভাইরাস করোনাতে মৃত্যুর |

একইসাথে দেশবাসী দেখেছে কর্মহীন ও অনাহারে মৃত্যু বরণ করতে বহু সাধারণ দেশবাসীকে | দেশবাসী এযাবৎ কাল পর্যন্ত সম্পূর্ণ ভাবে বুঝে উঠতে পারলো না , আসলে কি এই ‘ করোনা ভাইরাস ‘ | সারা বিশ্বের প্রায় অধিকাংশ দেশই দিবারাত্র এক করে এই করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিন আবিষ্কারের প্রচেষ্টা করে চলেছেন |

কিন্তু এখনও পর্যন্ত সঠিকভাবে সেই কার্যকারিতা কোনও দেশই অর্জন করে উঠতে পারেনি | কিন্তু এক্ষেত্রে তারা প্রায় অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন এই কার্যে | তাই এই মুহূর্তে প্রত্যেকটি মানুষের প্রধান কর্তব্য সবসময় সবক্ষেত্রে সচেতন ভাবে থাকা | এই সচেতনতার নির্দেশ করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই সরকার একাধিকবার বিভিন্ন পদ্ধতিতে সাধারণ মানুষের নিকট প্রচার করে আসছে , রয়েছে একপ্রকার কঠোর সরকারি প্রটোকল এই করোনা সচেতনতার ক্ষেত্রে |

সম্প্রতি করোনা আবহের মধ্যেই সরকার একপ্রকার দেশবাসীর স্বার্থেই নিউ নরম্যালে স্বাভাবিক করেছে বহু পরিষেবাগুলিকে | একইসাথে সরকার এক্ষেত্রে প্রত্যেক মানুষকে সর্বদা সচেতন থাকারও পরামর্শ দিয়ে চলেছেন সর্বদা | আর এরই মধ্যে চলে এসেছে বাঙালীর শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপূজা | যে উৎসবের জন্যে বছরভর একপ্রকার অপেক্ষা করে থাকে সমগ্র বাঙালী জাতী |

তাদের মধ্যে এই উৎসবমুখর দিনগুলিতে একপ্রকার জাগরুক হয়ে ওঠে এক নব উল্লাস ও উদ্দীপনা | আর এই বছর সেই উৎসবেই একপ্রকার জল ঢেলে দিয়েছে এই অতিমারী করোনা | যাইহোক সবকিছু বিশ্লেষণ করে একইসাথে কঠোর সচেতনতার বিধি মেনে চলার নির্দেষ দিয়েই সরকার সম্প্রতি রাজ্যব্যাপী দুর্গোৎসব করার অনুমতিও দিয়েছে | কিন্তু সব খেত্রেই থাকছে কঠোর সচেতনতার নির্দেশ |

যেমন সবসময় মানুষ বাইরে বেরোলেই মুখে মাস্ক পড়তে হবে , সবসময় প্রত্যেকের মধ্যে শারীরিক দূরত্ববিধি মেনে চলতে হবে , সর্বদা পরিছন্ন থাকতে হবে | তবেই কিছুটা হলেও এই অতিমারী করোনাকে প্রতিহত করা যেতে পারে | কিন্তু কথায় আছে ‘ কে কার কথা শোনে ‘ , অধিকাংশ ক্ষেত্রেই রাজ্যব্যাপী করোনা সচেতনতাকে করা হচ্ছে একপ্রকার অবহেলা | আর যার ফলেই সম্প্রতি দিনের পর দিন লাফিয়ে লাফিয়ে বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে রাজ্যব্যাপী করোনা সংক্রমণের উর্ধমুখী গ্রাফ | অনুরূপ শুক্রবার দুর্গাপুরের অতি জনবহুল বাজার রূপে পরিচিত বেনাচিতি বাজারে দুর্গোৎসবের আগেই দেখা গেলো এক ভয়ঙ্কর দৃশ্য , এই বেনাচিতি বাজারের অধিকাংশ দোকানেই করোনা সচেতনতাকে একইসাথে সরকারী নির্দেশকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে ক্রেতা ও বিক্রেতার পুজোর বিকিকিনি করতে |

যেখানে পরিষ্কারভাবে দেখা যাচ্ছে ক্রেতা থেকে বিক্রেতা কারও মধ্যেই নেই কোনও সচেতনতাকে মেনে চলার রীতি | প্রায় অধিকাংশ দোকানেই পুজোর কেনাকাটা করতে দেখা যাচ্ছে ক্রেতাদের গায়ে গায়ে দাঁড়িয়েই , অনেক ক্ষেত্রে আবার বিনা মাস্কেই ঘোরাফেরা করতে | জিনিসপত্র বিক্রয়ের তাগিদে দোকানদারদেরকেও দেখা যাচ্ছেনা ক্রেতাদের সচেতন করতে এই করোনা সচেতনতা নিয়ে | এইরকম অবহেলা যদি ক্রমশই চলতে থাকে , তবে এই রাজ্যে করোনা সংক্রমণ যে কিভাবে ও কতোটা ভয়াবহ রূপ ধারণ করবে এই উৎসবমুখর দিনগুলোতে সেটা ভাষাতে কোনও ভাবেই ব্যক্ত করা যাবেনা | অবশ্য এক্ষেত্রে নেই কোনও প্রশাসনিক তৎপরতাও এই অতীব গুরুত্বপূর্ন বিষয়টি নিয়েও |

তবে প্রশ্ন এখন একটাই শুধু কি করোনাকে প্রতিহত করার জন্যে সচেতনতার নির্দেশ দিলেই হবে , নাকি সেই নির্দেশ আমজনতা যথাযত ভাবে পালন করছে কিনা সেটাও দেখতে হবে প্রশাসনকে |

এইরূপ অসচেতন জনতার কর্মকান্ডকে এক কথায় ‘ অশনি সংকেত ‘ বলা যেতেই পারে সেই বিষয়ে সন্দেহের কোনও অবকাশ নেই |

By DG.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button