পশ্চিমবঙ্গশিরোনাম এই মুহূর্তে

সকলকে নিয়ে চলুন, দিলীপকে বার্তা নড্ডার –

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : তিনি একাই বাংলায় ক্ষমতা বদলে সক্ষম— বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যকে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব যে ভাল চোখে দেখছেন না, রবিবার তা তাঁকে বুঝিয়ে দেওয়া হল। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জগৎপ্রকাশ নড্ডা এ দিন দিল্লিতে দিলীপবাবুকে বৈঠকে বলে দিয়েছেন, সকলকে সঙ্গে নিয়ে বাংলায় ক্ষমতা দখলের লড়াইয়ে ঝাঁপাতে হবে। আবার এ দিনই কলকাতায় মুকুল রায়ের সঙ্গে বৈঠক করেছেন রাজ্য বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। একই দিনে দিল্লি এবং কলকাতায় বিজেপি শিবিরের এই দু’টি বৈঠককে বিধানসভা ভোটের আগে রাজ্য দলের অন্তর্ন্দ্বন্দ্ব মেটাতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের তৎপরতা বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

বিজেপি সূত্রের খবর, বিরোধী গোষ্ঠীর কারণে কাজে কী সমস্যা হচ্ছে, তা এ দিন দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সামনে তুলে ধরেন দুই নেতাই। কলকাতা থেকে ফিরে গিয়ে নড্ডা এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) বি এল সন্তোষের সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা রয়েছে কৈলাসের। তার পরেই ওই দ্বন্দ্ব মেটাতে চূড়ান্ত পদক্ষেপ করতে পারেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

দিল্লির বৈঠকের পরে দিলীপবাবু বলেন, ‘‘নড্ডাজি’র সঙ্গে আমার প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠক হয়েছে। বাংলার সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি, সংবাদমাধ্যমে আমাদের দলকে নিয়ে যে সব বিতর্কিত চর্চা হয়, সেই সব আলোচনায় এসেছে। নড্ডাজি বলেছেন, দলের সকলকে নিয়ে বাংলায় রাজনৈতিক ক্ষমতার পরিবর্তন করতে হবে।’’ সম্প্রতি কলকাতায় দিলীপবাবু দাবি করেছিলেন, ‘‘বাংলার পরিবর্তন দিলীপ ঘোষ একা করতে পারবে।’’ সে বিষয়ে কি নড্ডা এ দিন তাঁকে কিছু বলেছেন? দিলীপবাবুর জবাব, ‘‘বলেছেন, এ সব বলার দরকার নেই। এ সব বললে অন্যরা ভাবেন, তাঁদের বোধহয় আর দরকার নেই। সকলকে নিয়ে কাজ করতে বলেছেন।’’

বিজেপি সূত্রের খবর, এ দিন সন্ধ্যায় দিলীপবাবু নড্ডা এবং সন্তোষের সঙ্গে দেখা করে জানান, রাজ্যে কিছু নেতার কার্যকলাপে দলে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। অবিলম্বে পরিস্থিতির উন্নতি না হলে বিধানসভা ভোটে ভাল ফল অধরাই থেকে যাবে। বিজেপি সূত্রের মতে, এ দিন কলকাতায় কৈলাসের সঙ্গে বৈঠকে মুকুলবাবুও জানান, দল তাঁকে ‘যোগ্য’ মনে করলে কাজের উপযুক্ত পরিসর দিক। মুকুলবাবুও কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে জানিয়েছেন, সমস্যা মিটিয়ে এখন থেকেই বিধানসভা নির্বাচনের জন্য না ঝাঁপালে ভাল ফল করা মুশকিল হবে। মুকুলবাবুর তৃণমূলে ফেরা নিয়ে জল্পনা প্রসঙ্গে দিলীপবাবু এ দিন বলেন, ‘‘মুকুল রায়কে শংসাপত্র দেওয়ার আমি কেউ নই। মুকুলদা বিজেপিতে আছেন, থাকবেনও।’’

বিজেপি সূত্রের খবর, যোগ্য ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে শুধু ‘নিজের লোকেদের’ নিয়ে কাজ করার অভিযোগ দিলীপবাবুর বিরুদ্ধে জমা পড়েছিল কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে। যদিও দিলীপবাবুর বক্তব্য, ‘‘লোকসভা নির্বাচনে আমার নেতৃত্বে দল জিতেছে। দলের ভরসা না থাকলে আমায় ফের সভাপতি করা হল কেন?’’ দিলীপবাবুর আরও বলেছেন, ‘‘আমি সবাইকে কাজ ও সম্মান দেওয়ার চেষ্টা করেছি। আমার ভুল হতে পারে। আমি সব জানি, এমন নয়। কিন্তু যারা এমন কথা বলছে, তারা দলের মধ্যে লড়াই না করে বরং রাস্তায় নেমে তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়ে দেখাক!’’

AG

সৌজন্যে : ABP

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button