দক্ষিণ 24 পরগনাশিরোনাম এই মুহূর্তে

সকাল থেকে নিখোঁজ থাকার পর বাড়ি থেকে কিছু দূরে রাস্তা লাগোয়া পুকুর থেকে উদ্ধার যুবকের দেহ –

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : সকাল থেকে নিখোঁজ থাকার পর বাড়ি থেকে কিছু দূরে রাস্তা লাগোয়া পুকুর থেকে উদ্ধার যুবকের দেহ। আগের থেকেই মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিল যুবক, অসাবধানতাবশত পড়ে গিয়ে কারোর নজরে না আসায় জলে ডুবে মৃত্যু বলে অনুমান পরিবারের। দেহ উদ্ধার করে স্থানীয় আমতলা গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে এলে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ 24 পরগনা জেলার বিষ্ণুপুর থানা এলাকার ভান্ডারিয়া গ্রামে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মৃত যুবক সোমনাথ খাঁড়া(23) রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন। মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, সকালের খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে পাড়ারই এক বন্ধুর বাড়ি যাচ্ছি বলে বেরিয়ে যায় সোমনাথ। কিন্তু বাড়ি না ফেরায় খোঁজাখুঁজি করতে থাকে পরিবারের লোকজন। তারপরও মেলেনি কোন খোঁজ। বাড়ির কিছু দূরে রাস্তা লাগোয়া একটি পুকুরে সোমনাথের জুতো ভাসতে দেখে সন্দেহ হয় তার মায়ের। তারপরই গ্রামবাসীরা পুকুরে বহু খোঁজাখুঁজির পর ওই পুকুর থেকে উদ্ধার হয় সোমনাথের নিথর দেহ। সোমনাথ বহু আগে থেকেই মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিল বলে দাবি পরিবারের। তার জেরেই এদিন রাস্তা দিয়ে আসার পথে আচমকাই মৃগী রোগের উপসর্গ দেখা দেওয়ায় পুকুরে পড়ে না উঠতে পেরে মৃত্যু হয়েছে বলে অনুমান তার পরিবারের।

যদিও, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বিষ্ণুপুর থানার পুলিশ। দেহ উদ্ধার করে পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তে। অপরদিকে ঘটনায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে বিষ্ণুপুর থানার পুলিশ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button