-Advertisement-

তৃণমূলের চাপে “বেগতিক” দেখে ভুয়ো ক্ষতিগ্রস্থরা টাকা ফেরত দিতে বাধ্য –

পশ্চিমবঙ্গ

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : আমপান ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জেলার হাজার হাজার বাড়ি । সেই বাড়ির মালিকদের আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে রাজ্য সরকার ।
যাদের বাড়ি আদেও ক্ষতি হয়নি এবং তাদের পাকা বাড়ি আছে এমন বহু তৃণমূলের সদস্যরা আমপান ঝড়ের টাকা পেয়েছে ।
‘বেগতিক’ দেখে ওইসব ব্যক্তিরা ক্ষতিপূরণের টাকা প্রশাসনের ভয়ে ফেরত দিতে বাধ্য হচ্ছে । তমলুক ব্লক প্রশাসন সূত্রের খবর, ১২টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে ছ’টি গ্রাম পঞ্চায়েতে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকার তদন্ত শেষ হয়েছে এবং মোট ৭০০ ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির তালিকা জমা পড়েছে ব্লক প্রশাসনের কাছে ।
কিন্তু নুতন তালিকা তৈরির আগেই এই ব্লকের একাধিক ‘ভুয়ো’ ক্ষতিগ্রস্তের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ক্ষতিপূরণের ২০ হাজার টাকা ঢুকে গিয়েছে। তাঁদেরই একাংশ টাকা ফেরাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তমলুকের বিডিও ।
তমলুক ব্লকের বিডিও গোবিন্দ দাস বলেন, ‘‘গত কয়েক দিনে অনেকেই ব্যাঙ্ক টাকা ফেরত দিয়েছেন।’’ কিন্তু সেই সংখ্যাটা কত, সে নিয়ে কিছু খোলসা করেননি বিডিও।
ব্লক প্রশাসন সূত্রের খবর, প্রথম দফায় ক্ষতিগ্রস্ত বাড়ির জন্য সরকারি টাকা পাওয়া যে সব পরিবারের বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি বলে তদন্তে জানা গিয়েছে, তাঁদের কাছ থেকে টাকা ফেরানোর জন্য প্রশাসনিক ব্যবস্থা করা হবে।
আর যে সব পরিবারের বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তাঁদের চূড়ান্ত তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে টাকা তোলার জন্য অনুমতি দেওয়া হবে। বিডিও গোবিন্দ দাস বলেন, ‘‘আমার ব্লকে যে ৭৫৫ জনের আকাউন্টে টাকা দেওয়ার ব্যবস্থা হয়েছিল, তাঁদের অ্যাকাউন্ট হোল্ড করা হয়েছে।
টাকা ফেরত নেওয়ার জন্য পঞ্চায়েতগুলিকেও জানানো হচ্ছে।’’
তমলুক ব্লকে আমপানে ক্ষতিগ্রস্ত হিসাবে টাকা পাওয়ার পর তা ফেরত দেওয়ার ঘটনা নিয়ে জেলা তৃণমূল সভাপতি শিশির অধিকারী বলেছেন , ‘‘পঞ্চায়েত প্রতিনিধিদের কেউ কেউ নিজদের লোকদের নাম তালিকায় দিয়েছিলেন। লোভের বশবর্তী হয়ে ওঁরা এটা করেছেন।
তবে যাঁদের পাকা বাড়ি রয়েছে অথচ টাকা পেয়েছেন, তাঁদের নাম তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। টাকা ফেরানোর জন্য প্রশাসনও ব্যবস্থা নিচ্ছে ।’’

-Advertisement-
Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-