-Advertisement-

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস – প্রতারণার অভিযোগ , ৪ বছর ধরে ধর্ষণ , Exclusive audio out ,অভিযোগ দক্ষিণ কলকাতার বিজেপি সভাপতি সোমনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় এর বিরুদ্ধে –

কলকাতা পশ্চিমবঙ্গ

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : বিজেপির প্রাক্তন এক মহিলা কর্মীর অভিযোগ, দিনের পর দিন বিয়ের মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিলেন সোমনাথ ব্যানার্জি । এমনকি একাধিকবার টাকা-পয়সা নেয়ার অভিযোগ এনেছেন এই মহিলা । দক্ষিণ কলকাতার বিজেপির জেলা সভাপতি সোমনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে একাধিকবার সহবাস ও ৪ বছর ধরে লাগাতার ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন এই মহিলা ।

-Advertisement-

সংবাদ ভাস্কর আমাদের সংবাদমাধ্যমে এক সাক্ষাৎকারে উনি জানিয়েছেন কিভাবে সোমনাথ ব্যানার্জি তাকে দলের গুপ্তচর হিসেবে ব্যবহার করতো । ওই মহিলা আমাদের জানিয়েছে ২০১৫ সালে তিনি বিজেপি’তে যোগদান করেন। সেই সূত্রেই পরিচয় হয় তৎকালীন বিজেপি দক্ষিন কলকাতা শহরতলী জেলা সভাপতি সোমনাথ ব্যানার্জীর সঙ্গে। পরিচয়ের পর উচ্চপদ পাইয়ে দেওয়ারও আশ্বাস দেন বিজেপি’র জেলা সভাপতি। প্রতিশ্রুতি মতো জেলা শিক্ষক সেলের কনভেনরও করা হয় তাকে। এরপর থেকেই দুজনের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। দিনের পর দিন তাকে বিয়ের মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিলেন সোমনাথ ব্যানার্জি


বিজেপি’র কলকাতা দক্ষিণ শহরতলী জেলার প্রাক্তন দুই সাধারণ সম্পাদক সন্দীপ রায়বিমল সেন আমাদের জানিয়েছেন – “সোমনাথ ব্যানার্জির মহিলাঘটিত নানা বিষয় ও দলীয় তহবিলের টাকা তছরুপ থেকে শুরু করে বিভিন্ন দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমরা মুখ খুলেছিলাম বলে তিনি প্রভাব খাটিয়ে আমাদের দুজনকেই ২০১৮ সালে ওই পদ থেকে সরিয়ে দেন। এ ব্যাপারে আমরা বিজেপির রাজ্য কমিটি এমনকি কেন্দ্রীয় কমিটিকে জানিয়েও কোনও সুরাহা পাইনি। উল্টে কলকাতা দক্ষিণ শহরতলী জেলা সভাপতির সঙ্গে দক্ষিন কলকাতারও সভাপতি করে তাকে কার্যত: “প্রমোশন” দেওয়া হলো। আমাদের অভিযোগের ভিত্তিতে বিজেপির উচ্চস্তরের নেতৃবর্গরা তখনই যদি পদক্ষেপ নিতেন তাহলে জেলায় এই কলঙ্কিত ঘটনা ঘটতো না।”
দক্ষিণ শহরতলি জেলার সভাপতি সোমনাথ ব্যানার্জি আমাদের সংবাদমাধ্যমে এখনো অবধি প্রতিক্রিয়া দেননি ।

-Advertisement-
Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-