-Advertisement-

এইবার ডেটিং অ্যাপে রাজ চক্রবর্তীর নামে প্রোফাইল , কুপ্রস্তাব মহিলাদের –

কলকাতা শিরোনাম এই মুহূর্তে

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : প্রোফাইলে জ্বলজ্বল করছে পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর নাম। সঙ্গে তাঁর ছবি। পাশে দেখা যাচ্ছে ব্লু-টিক। অর্থাৎ কি না, প্রোফাইল ভেরিফায়েড। সেখান থেকেই বিভিন্ন বয়সি মহিলাদের কাছে যাচ্ছে নানা ধরনের অশালীন প্রস্তাব, নোংরা মেসেজ। অথচ এ সবের বিন্দু বিসর্গও জানেন না রাজ। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই স্তম্ভিত তিনি। ‘এ সব কী?’

-Advertisement-

দিন কয়েক আগের ঘটনা। এক মহিলা অনুরাগী সত্যিকারের রাজ চক্রবর্তী ভেবে ‘টানটান’ নামক ওই ডেটিং অ্যাপে মেসেজ করেন ভুয়ো ‘রাজ’কে। দু’একটি বাক্যালাপের পরেই সেই অনুরাগীর বুঝতে অসুবিধে হয় না, এই প্রোফাইলের মালিক রাজ চক্রবর্তী নন। ততক্ষণে অবশ্য অনেকটাই দেরি হয়ে গিয়েছে। ওই ব্যক্তি রাজের নাম নিয়ে আরও বেশ কয়েক জন মহিলাকে পাঠিয়ে দিয়েছেন নোংরা প্রস্তাব, মেসেজ।

রাজের নজর পড়ে শনিবার। আনন্দবাজার ডিজিটালকে রাজ বললেন, “এর আগে অনেক বার আমার নামে ফেক প্রোফাইল খোলা হয়েছে। ছবিতে কাজ দেওয়ার নামে টাকা চাওয়া হয়েছে। আমি লাইভে এসে বহু বার সতর্ক করেছি। পুলিশে অভিযোগও জানিয়েছি আমি। গ্রেফতারও করা হয়েছে অপরাধীদের। কিন্তু এই বার আমি সত্যিই অবাক। ওই ব্যক্তি শুধু আমার নামে ফেক প্রোফাইলই খোলেনি। রীতিমতো তাতে ব্লু টিক ম্যানেজ করেছে।” রাজ স্পষ্ট ভাষায় জানান, চেনা-পরিচিত না হলে কারও সঙ্গে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে কথা বলেন না তিনি।

-Advertisement-

সাইবার সেলে কি অভিযোগ জানিয়েছেন রাজ? রাজ বললেন, “না এখনও জানাইনি। তবে খুব শীঘ্রই জানাব। এর একটা বিহিত হওয়া দরকার। প্রতিনিয়ত এমনটা হয়ে আসছে। যারা এ সব করছে, তারা কি জানে না সাইবার সেল যদি একবার তাদের ধরতে পারে তবে ভয়ানক শাস্তি অপেক্ষা করছে।” পাশপাশি অপরাধীদের উদ্দেশে তাঁর কড়া জবাব, “নিজের আসল পরিচয় লুকিয়ে মেয়েদের প্রোফাইলে ঢুকে যেভাবে দিন দিন এদের নোংরামি বেড়ে চলেছে, তা কিন্তু আর কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না।”

-Advertisement-

নিজের সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলেও গোটা বিষয়টি জানিয়ে ভক্তদের সাবধান করেছেন পরিচালক। একজন ভক্ত কমেন্ট বক্সে লিখেছেন, “তোমার সঙ্গে শুভশ্রীদি’র সম্পর্ক খারাপ করার জন্যই এই সব ইচ্ছে করে করা হচ্ছে।” অবশ্য এক ভুয়ো, নামহীন মানুষের অপরাধ রাজ-শুভশ্রীর জীবনে প্রভাব ফেলতে পারে, এতটাও ঠুনকো সম্পর্ক তাঁদের নয়। চক্রবর্তী পরিবারে এখন খুশির আমেজ। আর মাত্র দেড় মাস পরেই মা হবেন ‘শুভ’। নতুন অতিথির আগমনের অপেক্ষায় আপাতত দিন কাটছে তাঁদের। 

সৌজন্যে : ABP

Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-