-Advertisement-

ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনার সাক্ষী দুর্গাপুরের কাশীরাম দাস রোডের বাসিন্দারা , ডাম্পারের ধাক্কায় প্রাণ হারালো এক কিশোর –

দুর্গাপুর শিরোনাম এই মুহূর্তে

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : মঙ্গলবার জন্মাষ্টমীর সকালটা দুর্গাপুরের কাশীরাম দাস নিবাসী শুভ্রজিতের জীবনে হয়তো ছিল এক অভিশপ্ত দিন | এদিনই শুভ্রজিৎ বাড়ির লোকেদের কাছে জেদ করে চেয়েছিলো সাইকেল চালানোর জন্যে রাস্তায় যেতে | হয়তো সে বা তার পরিবারের সদস্যরা জানতেও পারেনি যে এই জন্মাষ্টমিই কাল হয়ে যাবে শুভ্রজিতের জীবনে চির দিনের জন্যে | কে বা জানতো যে মঙ্গলবার এর পর আর কোনোদিনই শুভ্রজিৎ এর অস্তিত্ব ফিরে পাবেনা তার পরিবার | এমনই এক করুন ও ভয়াবহ দুর্ঘটনা দেখলো দুর্গাপুরের ইস্পাতনগরীর কাশীরাম দাস রোডের উপর ওই এলাকার বাসিন্দারা | ঘটনার সূত্রপাত , আপনমনে নিজের ছন্দে বছর তেরোর শুভ্রজিৎ সাইকেল চালাচ্ছিল কাশিরাম দাস রোডের রাস্তায় | হঠাতই ওই রাস্তা দিয়ে বেলাগাম গতিতে ছুটে আসা একটি ডাম্পার সজোরে ধাক্কা মারে শুভ্রজিৎকে | ওই ডাম্পারের ধাক্কায় ওই কিশোরটি তৎক্ষণাৎ পিষ্ট হয়ে যায় ওই ডাম্পারের চাকার তলায় | একইসাথে ওই ডাম্পারটি চাকার সাথে টেনে নিয়ে যায় অনেকটা.আর শুভ্রজ্যোতির মা সেই দৃশ্য দেখে ডাম্পারের পেছনে দৌড়ে যায় ছেলেকে বাঁচানোর জন্য. কিন্তু ততক্ষনে সব শেষ | তড়িঘড়ি ছেলেটিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা | কয়েকদিন আগেই বেনাচিতির বাসিন্দা শুভ্রজিৎ দুর্গাপুর ইস্পাত হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল | হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার সাথে সাথে মা কে নিয়ে কাশীরামে মামার বাড়ীতে চলে আসে এই কিশোর এরই মধ্যে মঙ্গলবার সকালে ঘটে যায় মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনা | আর এই মামাবাড়িতে আসাটাই ঘোরতর কাল ডেকে আনলো শুভ্রজিতের জীবনে | এই ঘটনার জেরে উত্তেজিত হয়ে পড়ে স্থানীয় জনতা ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয় ঘাতক ঐ ডাম্পারে | আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয় ডাম্পারের চালকের সিটে শুরু হয় অবরোধ দাবী ছিল , কোনোভাবেই ক্ষতিপূরণ ছাড়া এই ডাম্পার ছাড়া যাবে না এমনকি এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে দেওয়া যাবেনা ওভারলোডেড কোনো গাড়ি | এই ঘটনার ঘটনার পাওয়া মাত্রই দুর্গাপুর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছায় | একইসাথে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুরো ঘটনা শান্ত করে পরিস্থিতি | ক্ষতিপূরণের আশ্বাস দেওয়ার পরই শান্ত হয় পরিস্থিতির | এই ঘটনার জেরে ওই এলাকায় এক গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে |

-Advertisement-
Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-