-Advertisement-

করোনা আবহে দুর্গাপুরে রাপিড এন্টিবডি টেস্টে স্বতঃস্ফূর্ত সাড়া জনগণের –

দুর্গাপুর শিরোনাম এই মুহূর্তে

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : আজ ১১-ই আগষ্ট, শহীদ ক্ষুদিরাম বসুর আত্মবলিদান দিবসে সি পি আই (এম) দুর্গাপুর পূর্ব ২ নং এরিয়া কমিটির উদ্যোগে করোনা প্রতিরোধী কর্মসূচীর অঙ্গ হিসাবে অনুষ্ঠিত হয় ” রক্তে অ্যান্টিবডি টেস্ট “। এইদিন সগড়ভাঙ্গা গ্রাফাইট ইউনিয়ন অফিস রবীন সেন ভবনে শহীদ ক্ষুদিরাম বসুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। মাল্যদান করেন জেলা নেতৃত্ব পঙ্কজ রায় সরকার, এরিয়া কমিটির সম্পাদক সিদ্ধার্থ বসু, সিআইটিইউ নেতৃত্ব মতলব আলি, নিত্যহরি দত্ত সহ ছাত্র-যুব নেতৃত্ব।

-Advertisement-


কোভিড-১৯ ভাইরাসের ক্রমবর্ধমান আক্রমণ ও সংক্রমন আজকের দিনে সারা বিশ্বের সাথে সাথে ভারতবর্ষকেও ভয়ংকর ভাবে সংক্রমিত করে তুলছে। আমাদের রাজ্যও তার ব্যতিক্রম নয়। এখনো পর্যন্ত সারা ভারতে মোট করোনা আক্রান্ত বাইশ লক্ষ আটষট্টি হাজার ছয়শো পঁচাত্তর, মোট মৃতের সংখ্যা পঁয়তাল্লিশ হাজার দুইশত সাতান্ন। শুধু আজকেই আক্রান্ত (গত ২৪ ঘন্টায়) তিপ্পান্ন হাজার ছয়শত এক। পশ্চিমবঙ্গে মোট আক্রান্ত আটানব্বই হাজার চারশত ঊনষাট। মৃত এখনো পর্যন্ত দুহাজার একশত জন। গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২৯০৫ জন।


অথচ বিশ্বজুড়ে এই সমস্যা নিরসনে বিকল্প পথের সন্ধান দিয়েছে বামপন্থীরা। চিকিৎসা ব্যবস্থার সামাজিকিকরন, উৎপাদন(বিশেষত খাদ্য ও ঔষধ শিল্প) ব্যবস্থার সামাজিকিকরন, রাষ্ট্রে নিয়ন্ত্রণে চিকিৎসা, খাদ্যসরবরাহ,আর্থিক সাহায্যপ্রদান, টেস্ট-টেস্ট-আরো টেস্ট নিয়ন্ত্রিত করতে পারে এই অতিমারীকে।
সিপিআই(এম) এর রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র নিজে একজন ডাক্তার। প্রথম থেকে সর্বদলীয় সভায় তিনি রাজ্য সরকারকে পরামর্শ দিয়ে এসেছেন সরকারী নিয়ন্ত্রণে চিকিৎসা, সরকারী ভাবে প্রয়োজনীয় খাদ্যশস্য বিতরন, গরীব মানুষদের সরাসরি অর্থ সাহায্য, আরো বেশী পরীক্ষা, ক্রমাগত পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানো ইত্যাদি। অন্য বাম দলগুলি এবং কংগ্রেসও তার এই সুপরামর্শের সাথে একমত হয়। মুখ্যমন্ত্রী প্রাথমিকভাবে একমত হলেও কার্যক্ষেত্রে এসবের কিছুই করেন নি। শুধুমাত্র মিথ্যা বাকচাতুর্যে আর সাংবাদিক ডেকে রাস্তায় গোল্লা কেটে ছবি তুলে করোনা মোকাবিলার নামে নিজের প্রচার করতে চেয়েছেন।
এমত অবস্থায় বাম সংগঠনগুলি বিশেষত সিপিআই(এম) তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী কোভিড মোকাবিলায় অনান্য কাজের মতই সমান গুরুত্ব দিয়ে সারা পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে অ্যান্টিজেন টেস্ট শিবির আয়োজন করছে। যার থেকে মোটামুটি একটা তথ্য পাওয়া যেতে পারে যে সংক্রমণ প্রতিরোধে মানুষের শরীরে কতখানি প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে উঠেছে।
সিপিআই(এম) দুর্গাপুর ২নং এরিয়া কমিটির এই প্রয়াসে সাড়া দিয়ে সকাল থেকেই প্রচুর মানুষ উপস্থিত হয়ে অ্যান্টিবডি টেস্ট করিয়েছেন এবং সিপিআই(এম) কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন এরকম একটি সময়োচিত পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য।

-Advertisement-

-Advertisement-
Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-