-Advertisement-

দীর্ঘ তিন বছর পর পাহাড়ে বিমল গুরুং এর গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা সাধারণ সম্পাদক রোসন গিরী।

পশ্চিমবঙ্গ শিরোনাম এই মুহূর্তে শিলিগুড়ি সাধারণ খবর

দীর্ঘ তিন বছর পর পাহাড়ে বিমল গুরুং এর গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা সাধারণ সম্পাদক রোসন গিরী।বেশ কয়েকদিন যাবৎ বিমল রোশনরা পাহাড়ে আসবেন এমন গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল।কিছুদিন আগে কলকাতায় প্রকাশ্যে এসেছিলেন বিমল গুরুং।রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের কাজকর্মের ভূয়শী প্রশংসা করেছিলেন গুড়ুং।

-Advertisement-

তৃণমূলের ঘাড়ে ভর দিয়েই পাহাড়ে উঠতে পন্থা নিয়েছেন বিমল ও রোশান গিরিরা।শনিবার বাগডোগরা বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান রোশন।রবিবার কার্শিয়াং মোটর স্ট্যান্ড এ সভা করার কথা তার।রোসান গিরী কে স্বাগত জানাতে ভিড় জমায় গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার বিমল গুরুং পন্থীরা।

পার্বত্য এলাকা বিমল গুরুংয়ের এবং গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার পতাকায় সাজিয়ে তোলা হয়।সূত্রে খবর বিমল এবং রোশন আগামী সপ্তাহেও সিবচুতেও একটি সভা করবেন।ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে রোশন জল মাপতে এসেছেন।অবস্থা নিয়ন্ত্রণে থাকলেই পাহাড়ে ফিরবেন বিমল।

-Advertisement-

বাগডোগরা বিমানবন্দরে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রোশন বলেন তারা পাহাড়ের মানুষের আবেগের সাথেই আছেন।অপরদিকে তৃণমূল-বিজেপি সিপিএম এবং গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা বিনয় তামাং পন্থী নেতা অনিত থাপার বক্তব্য ভারত গণতান্ত্রিক দেশ সবার সব জায়গায় যাওয়ার অধিকার আছে।মোটের ওপর নতুন করে পাহাড় কে উত্তেজিত করার মত কোন বক্তব্যই পোষণ করেননি কোন দল।এখন এটাই দেখার নানান অভিযোগে অভিযুক্ত বিমল এবং রোশন দের পাশে কতটা থাকে পাহাড়বাসী।

-Advertisement-

Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-