-Advertisement-

পশ্চিম বর্ধমানের রানিগঞ্জের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করলেন :

পশ্চিমবঙ্গ শিরোনাম এই মুহূর্তে

সংবাদ ভাস্কর নিউজ :সদ্য মেদিনীপুরের সভা সমাপ্তির পরেই মঙ্গলবার পশ্চিম বর্ধমানের রানিগঞ্জের সিয়ারসোল রাজবাড়ীর ময়দানে সভা করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় | এদিন রানিগঞ্জের সিয়ারসোল রাজবাড়ী ময়দানে মুখ্যমন্ত্রীর সভাকে ঘিরে ছিল আঁটোসাঁটো নিরাপত্তা ব্যবস্থা |

-Advertisement-

এদিন ২ নম্বর জাতীয় সড়কে সকাল থেকেই ছিল ব্যাপক পুলিশি তৎপরতা , যাতে মুখ্যমন্ত্রীর সভাকে ঘিরে কোনোরূপ অরাজকতা সৃষ্টি না হয় | একইসাথে এই সভাতে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থক থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের ভীড় ছিল চোঁখে পড়ার মতন | এদিন যেহেতু সারা ভারতব্যাপী ছিল কৃষক আন্দোলনের ডাকে ভারত বনধ | তাই রাস্তায় সেইভাবে বেসরকারী যাত্রী পরিবহন বাসের চলাচল লক্ষ করা যায়নি | স্বভাবতই এদিন অন্যান্য দিনের তুলনায় রাস্তায় সরকারী বাসের পরিসংখ্যানটাও ছিল অধিক |

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এদিন রানিগঞ্জের সভা থেকে কেন্দ্র সরকার একইসাথে বিজেপিকে তার বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে একহাত নিয়েছেন | আসানসোল – দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলে কয়লা মাফিয়া প্রসঙ্গ থেকে উত্তরবঙ্গে সোমবারের উত্তরকন্যা অভিযানে বিজেপি কর্মীর মৃত্যুর ঘটনায় এদিনের সভা থেকে সরাসরি বিজেপিকে একপ্রকার আক্রমণ করেছেন মমতা বন্দোপাধ্যায় | একইসাথে এদিন এই সভাস্থল থেকে রেলের বেসরকারিকরণ থেকে ইসিএলের কয়লাখনি বন্ধ বিএসএনএল বন্ধ ব্যাঙ্কের সদর দপ্তর বাংলা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রী কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে। একের পর এক সংস্থাগুলোকে কেন্দ্র সরকার বেসরকারিকরণ করে দেওয়ার ঘোরতর প্রতিবাদ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় |

-Advertisement-

তিনি তার দলের নেতৃত্বদের এই বিষয়টি নিয়ে আরও তীব্র থেকে তীব্রতর আন্দোলন ও প্রতিবাদ কর্মসূচী চালিয়ে যাওয়ার কথাও জানিয়েছেন | তিনি কৃষক আন্দোলনকে একপ্রকার সমর্থন জানিয়ে এদিনের সভা তিনটের পরেই শুরু করেছেন | মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এদিনের সভাতে সম্প্রতি রাজ্য সরকারের চালু হওয়া বিভিন্ন প্রকল্পগুলি যাতে অতি সহজেই রাজ্যের প্রতিটি মানুষের নিকট পৌঁছয় , তার জন্যে সরকার যে নতুন ‘ দুয়ারে সরকার ‘ কর্মসূচী শুরু করেছে সেই বিষয়েও সাধারণ মানুষকে একপ্রকার অবগত করেছেন | একইসাথে রাজ্যের সাধারণ মানুষ যাতে সরকারী সমস্ত প্রকল্পগুলি সহজেই পেতে পারে তার জন্যে সরকারী অধিকারিকদেরকেও সবসময় সহযোগিতার কথা জানিয়েছেন |

-Advertisement-

সর্বশেষে এদিনের মুখ্যমন্ত্রীর সভা থেকে একটা বিষয় স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে যে আগামী ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক মুহূর্তে রাজ্য সরকার এ রাজ্যের সাধারণ মানুষদেরকে সর্বদা সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে সেই বিষয়টি একেবারে স্পষ্ট | এই ধরণের সভাগুলি নির্বাচনের আগে সাধারণ মানুষের মধ্যে জনসংযোগ অনেকাংশেই বৃদ্ধি করতে যথেষ্ট সাহায্য করছে সেই বিষয়ে সন্দেহের কোনও প্রশ্ন নেই |

By DG

Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-