-Advertisement-

ডাক্তার হতে গেলে দিতে হবে কোটি ! –

কলকাতা দেশের খবর পশ্চিমবঙ্গ শিরোনাম এই মুহূর্তে

সংবাদ ভাস্কর নিউজ ডেস্ক : সব বাবা মায়ের স্বপ্ন থাকে নিজের ছেলে মেয়েকে ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার বানানো । কিন্তু সে স্বপ্ন এবার হয়তো স্বপ্নই থেকে যেতে পারে সেইসব বাবা-মায়েদের । কথায় আছে যে মানুষ অন্য মানুষের জীবন রক্ষা করে সে সাধারণের কাছে ঈশ্বর । তেমনি ডাক্তার হলো আমাদের কাছে ভগবান । অথচ এই ভগবান হতে গেলে তার দক্ষিণা গুনতে হবে কয়েক শ গুণ । যা এক কথায় সাধারণের হাতের নাগালের বাইরে ।

-Advertisement-

২০১৯ সালের রাজ্যের বেশিরভাগ প্রাইভেট মেডিকেল কলেজ গুলিতে ভর্তির দাম আকাশছোঁয়া হয়ে গিয়েছিলো । বর্তমানে এখন এই বছরও করোনা পরিস্থিতির মধ্যে সবকিছুর বাজার মন্দা থাকলেও ডাক্তারি পড়ার খরচ ১ কোটি থেকে দেড় কোটি । যেখানে ১৬ লক্ষ পরীক্ষার্থীর মধ্যে প্রায় ৮ লক্ষ পরীক্ষার্থী ডাক্তারি পড়াশোনার অগ্রাধিকার পেয়েছে জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষার মাধ্যমে ।

সমস্যাটা হলো স্টেট কোটা বাদ দিয়ে ম্যানেজমেন্ট ও এন আর আই কোটার এক একটা সিটের দাম প্রায় দেড় কোটি । সূত্রের খবর , কলকাতার দুটি নামী মেডিকেল কলেজ বজ বজ ও যাদবপুরে এক একটি আসনের দাম যথাক্রমে ৮৫লাখ এবং ৫০লাখ । আর এন আর আই কোটার মোট ২৩ টি আসনের মধ্যে এক একটি আসনের দাম দেড় কোটি টাকারও বেশি । প্রত্যেকটি হোস্টেল খরচ বাদ দিয়ে শুধুমাত্র সিটের ভর্তি মূল্য ।

-Advertisement-

দীর্ঘদিন ধরে নিট পরীক্ষার সঙ্গে যুক্ত শিক্ষক চিকিৎসক এ.কে মাইতি বলেন , “এভাবে কোটি কোটি টাকা খরচ করে ডাক্তার হওয়ার পর সেই চিকিৎসক রোগীর কাছ থেকে হাজার হাজার টাকা ফিস নিলে অবাক হওয়ার কি আছে ! এই টাকার খেলা দিন দিন নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে ।”

-Advertisement-

SRC

Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-