-Advertisement-

সকাল সকাল এক শালিক ও জোড়া শালিক !

বিনোদন

পার্থ মুখার্জি , সংবাদ ভাস্কর বিনোদন ডেস্ক : শালিক পাখি আমরা প্রত্যেকেই দেখেছি। সে একটা শালিক হোক , জোড়া বা তার অধিক । আর সকাল সকাল যদি একটা শালিক দেখে থাকি তবে আমরা সচরাচর বলে থাকি আজকের দিনটা নেহাত গেল ডামাডোলে।

-Advertisement-

উল্টো ক্ষেত্রে যদি জোড়া শালিক দেখে থাকি তাহলে আমাদের মন একপ্রকার সন্তুষ্টিতে ভরে যায় , তার কারণ হলো জোড়া শালিক দেখলে দিনটা খুব ভালো যেতে পারে এই আশায়।

এমনকি জোড়া শালিক দেখা মাত্র আমরা অনেকে প্রণাম পর্যন্ত করে থাকি ভালো কিছু ঘটার আশায় বা কোন সুসংবাদ পাওয়ার আশায়। সাধারণত হিন্দুদের মনে পশুপাখিদের কে নিয়ে বহু সংস্কার ইতিমধ্যেই রয়েছে।

-Advertisement-

যেমন অনেকেই বলে থাকে যে বাড়িতে গরু পোশা একপ্রকার শুভ, আবার অনেকে বলে থাকে যে বাড়িতে বিড়াল পোষা অশুভ বা কোনক্রমেই ভালো নয়। প্রাচীনকাল থেকেই এই সমস্ত কথাগুলি সচরাচর প্রচলিত রয়েছে জনসমাজে।

-Advertisement-

এই সমস্ত বিষয় গুলো কতটা বাস্তব সম্মত সেই বিষয়বস্তু নিয়ে বহু বিতর্কও রয়েছে। এবার আসি সকালে একটি শালিক বা জোড়া শালিক দেখলে জ্যোতিষ মতে কী বোঝায়।

জ্যোতিষ মতে সকালে একটি শালিক দেখা অশুভ আর জোড়া শালিক দেখা শুভ। এমনকি বাড়িতে বেড়াল থাকলে নিজেদের সম্পর্কের মধ্যে চির ধরতে দেখা যায় , বৃদ্ধি পায় বহুবিধ রোগের প্রবণতা।

সেহেতু বাড়িতে বিড়াল না রাখাই ভালো। একটা কথা প্রত্যেকেরই জেনে রাখা ভালো যে বিশ্বাস অথবা অবিশ্বাস সেটা যার যার নিজের নিজের ব্যাপার , কিন্তু জোড়া শালিক বা একটি শালিক দেখলে আদৌ কি দিন ভালো যাবে ?

সেই বিষয়টি নিয়ে এখনো পর্যন্ত বৈজ্ঞানিক মত অনুসারে বহুবিধ বিতর্ক রয়েছে। এক কথায় বলতে গেলে কারোও ভাল বা মন্দ সবকিছুই সাধারণত নির্ভর করে সময়ের উপর।

কোন পশুপাখি বা অন্যান্য কোন বস্তুর উপর এইধরনের কোনো কিছুই নির্ভরযোগ্য কখনোই নয়। তাই একটা বহুবিধ প্রবাদ বাক্য বহুদিন ধরে প্রচলিত রয়েছে আমাদের এই সমাজে ‘ বিশ্বাসে মিলায় বস্তু তর্কে বহুদূর ‘ ।

Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-