সাতসকালে গলা থেকে ছিনতাই সোনার হার , যাদবপুরের ঘটনা

কলকাতা

সংবাদ ভাস্কর ডিজিটাল ডেস্ক : সাতসকালে সোনার হার ছিনতাই কলকাতার যাদবপুরে অভিজাত আবাসনে বসবাসরত এক প্রবীণ মহিলার। ইতিমধ্যে ওই ব্যক্তির পরিচয় জানার চেষ্টা করছে স্থানীয়রা। পুরো ঘটনাই বাড়ির সামনে থাকা সিসিটিভি ক্যামেরায় রেকর্ড হয়েছে। ছেলেটি কে ! কি তার উদ্দেশ্য তা স্পষ্ট নয়।

-Advertisement-

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশে কর্মী আবাসনের পাশে একটি অভিজাত কমপ্লেক্সের বাসিন্দা হাসি ঘোষ। তিনি জানিয়েছেন সকাল ৬:৩৫ নাগাদ প্রাতভ্রমন থেকে ফেরেন তিনি। বাড়ির গেট লাগিয়ে অন্দরে ফুল তুলতে যান তিনি।ফিরে এসে যখন ঘরে ঢুকতে যাবেন, এই সময়েই তাঁকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়ে, ওই হার নিয়ে চম্পট দেয় ওই দুষ্কৃতী।

ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ওই অঞ্চলে। ওই প্রবীণ মহিলা জানান তার গলার হারটি দেড় ভরি সোনা দিয়ে তৈরী ছিলো। ঘটনার রেশ কাটিয়ে উঠেই দেখা হয় বাড়ির সামনে থাকা সিসিটিভি ফুটেজ। সিসিটিভি ফুটেজ দেখেই জানা যায় ওই দুষ্কৃতি অনেককক্ষণ ধরেই সেখানে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

-Advertisement-

সন্দেহ করা হচ্ছে তিনি একা নয় তার সাথে আরও কেউ উপস্থিত ছিলো। এরপর সিসিটিভি ফুটেজ দেখে তাদেরকে চিহ্নিত করা হয়েছে। মনে করা হচ্ছে দুষ্কৃতীর সঙ্গে থাকা বন্ধু বাইকে ছিলো।যাদবপুরের ওই আবাসনে ওই মহিলা ও তাঁর স্বামী থাকেন। প্রবীণ দম্পতি এ বিষয়ে জানান ৭-৮ বছর আগে ওই জায়গায় এমন ঘটনা ঘটেছে।

-Advertisement-

যদিও এরপরে আর এসব কিছু কখনোই হয়নি। হাসি দেবীর স্বামী বলেন, ওই আবাসনে অধিকজনই প্রবীণ এবং বেশিরভাগেরই ছেলে মেয়ে বাইরে থাকে। এমন ভাবে দিনে দুপুরে চুরির ঘটনা ঘটলে সবার নিরাপত্তাই প্রশ্নের মুখে পড়বে। এই ঘটনার পরবর্তী কোনো ধাপ এগোনো হয়নি। পুলিশের সাহায্য নিলে সমস্যা কমতে পারে বলে জানিয়েছেন অনেকে। যদিও ওই প্রবীণ দম্পতি এখনো কিছু ব্যবস্থা নেননি।

Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-