-Advertisement-

কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ঘোষণা করলো সেনাবাহিনীতে নিয়োগ সংক্রান্ত ‘ অগ্নিপথ ‘ প্রকল্পের

দেশের খবর

সংবাদ ভাস্কর ডিজিটাল ডেস্ক : ভারতের সেনাবাহিনীতে নিয়োগসংক্রান্ত ‘অগ্নিপথ’ প্রকল্পের ঘোষণা করেছে দেশের কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। বুধবার এই ঘোষণা করা হয়। মন্ত্রকের এই ঘোষণার পর ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বিক্ষোভ দেখা গিয়েছে। যেসব রাজ্য থেকে বিপুলসংখ্যক তরুণ সেনাবাহিনীর নিচের দিকের কর্মী হিসেবে যোগ দেন, যেমন বিহার, উত্তর প্রদেশ ও হরিয়ানা। এই তিন রাজ্যে প্রকল্পের বিরোধিতায় বিক্ষোভ শুরু হয়েছে।

-Advertisement-

বিক্ষোভের তীব্রতা সবচেয়ে বেশি বিহারে।এদিকে এই পরিস্থিতিতে এবার বয়সের ঊর্ধ্বসীমা বদলাল কেন্দ্র। বুধবার ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক জানিয়েছিল, অগ্নিপথ প্রকল্পে ১৭ থেকে ২১ বছর বয়সের তরুণেরা চার বছরের জন্য সেনা, বিমান ও নৌবাহিনীতে চাকরি পাবেন। আর এরপরই বাড়তে থাকে ক্ষোভ।

ফলে সেই নিয়ম বদলে এবার বয়সের ঊর্ধ্বসীমা করা হল ২১ থেকে ২৩৷ এই প্রকল্পের আওতায় প্রতি মাসে ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা বেতন এবং চার বছর পরে ১১ থেকে ১২ লক্ষ টাকা এককালীন অর্থ দেওয়া হবে। কিন্তু ২৫ শতাংশের বেশি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত তরুণের চাকরি স্থায়ী করা হবে না বলেই জানান হয় এই প্রকল্পে।

-Advertisement-

ঘোষণায় বলা হয়েছে, এই অস্থায়ী চাকরির মাধ্যমে ‘নিয়মিত ক্যাডার সেবায় অন্তর্ভুক্তির জন্য আবেদনের সুযোগ’ থাকছে।প্রসঙ্গত, ‘অগ্নিপথ’ প্রকল্পের মাধ্যমেই এবার থেকে সেনাবাহিনীতে জওয়ান নিয়োগ। মঙ্গলবারই, ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর স্থল, নৌ এবং বায়ুসেনায় নিয়োগের ক্ষেত্রে এই নতুন প্রকল্পের ঘোষণা করে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

-Advertisement-

বলা হয়েছে, চার বছরের মেয়াদ শেষে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের ২৫ শতাংশকে স্থায়ী কর্মী হিসেবে সেনাবাহিনীতে নেওয়া হবে। বাদ যাওয়া বাকি ৭৫ শতাংশকে দেওয়া হবে ১০-১১ লক্ষ টাকা এককালীন ভাতা। যা হবে সম্পূর্ণ করমুক্ত।সূত্রের খবর, ৪ বছর পর স্কিল গেইন সার্টিফিকেট, ক্রেডিট ফর হায়ার এডুকেশন সার্টিফিকেট পাবেন প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা। তবে, অবসরের পরে ওই ৭৫ শতাংশ ‘অগ্নিবীর’রা পাবেন না সেনাবাহিনীর অবসরকালীন কোনও সুবিধে।

‘প্রাক্তন সেনাকর্মী’ বলে উল্লেখ করা যাবে না চাকরির ক্ষেত্রেও। পাবেন না পেনশন, গ্র্যাচুইটির সুবিধা। যা নিয়েই বুধবার উত্তাল হয় একাধিক রাজ্যের বাসিন্দারা।

Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-