বৃদ্ধি পাচ্ছে একাধিক নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম , মাথায় হাত আমজনতার

দেশের খবর

সংবাদ ভাস্কর ডিজিটাল ডেস্ক : আজ থেকে দাম বাড়ছে প্যাকেটজাত দুধ এবং দই সহ মধ্যবিত্ত মানুষের ব্যবহৃত একাধিক সামগ্রীর। লেবেল যুক্ত প্যাকেটজাত খাবারে এই জিএসটি বসতে চলেছে।

-Advertisement-

জুনের শেষে জিএসটি কাউন্সিলের মিটিংয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ফলে সাধারণ মানুষের জীবনে বাড়বে খরচ। জুনের শেষে বসেছিল জিএসটি কাউন্সিলের মিটিং। জিএসটি কাউন্সিলের ৪৭তম এই মিটিংয়ে ছিলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনও।

এই মিটিংয়ে জিএসটি নিয়ে একাধিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এমন কিছু দ্রব্যের উপর জিএসটি চাপানো হয়েছে, যেগুলি আগে ছিল জিএসটির আওতার বাইরে ছিল।

-Advertisement-

আগে থেকেই মুদ্রাস্ফীতির চাপে সাধারণ মানুষের পকেটে চাপ বেড়েছে, তার উপর এই জিএসটি বৃদ্ধির ফলে মাথায় হাত পড়তে চলেছে আমজনতার। রেভিনিউ বিভাগের সেক্রেটারি তরুণ বাজাজ জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকের পরে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, জিএসটি কাউন্সিলের সংশোধিত সিদ্ধান্তগুলি এই বছরের ১৮ জুলাই থেকেই কার্যকর করা হবে।

-Advertisement-

এই জিএসটি বসার পর থেকেই বেশ কিছু জিনিসের দাম আজ থেকে বাড়ল। প্যাকেটজাত যে কোনও খাবারের উপরেই বসছে জিএসটি। কোম্পানির লেবেল-সহ বিক্রি হলেই প্যাকেটজাত খাবারে জিএসটি দিতে হবে। জুলাইয়ের ১৮ তারিখ থেকে প্যাকেটজাত দুধ, লস্যি, মাখনে বসবে পাঁচ শতাংশ জিএসটি।

আগে এই পণ্যগুলি জিএসটির আওতা থেকে বাইরে ছিল। নয়া সিদ্ধান্তে ১৮ শতাংশ জিএসটি বসছে ব্যাঙ্কের ইস্যু করা চেকের উপর। অর্থাৎ আজ থেকে ব্যাঙ্কের প্রতিটি চেকের পেজের দাম আরও বাড়তে চলেছে। এছাড়াও পুজোর মুখে পর্যটকদের জন্যও রয়েছে খারাপ খবর। আজ থেকেই প্রতিটি হোটেল খরচ বাড়তে চলেছে।

১০০০ টাকার নীচের রুমে বসতে চলেছে জিএসটি। এই রুমের ক্ষেত্রে ১২ শতাংশ জিএসটি দিতে হবে সাধারণ মানুষকে। পাশাপাশি দাম বাড়বে নানা লাইটেরও। ১৮ শতাংশ জিএসটির আওতায় আসছে এলইডি লাইট, ল্যাম্পগুলি। এগুলিতে আগে ১২ শতাংশ জিএসটি ছিল।

Share this page:

Leave a Reply

Your email address will not be published.

-Advertisement-